ইলিশের যত কাঁটা তত দাম!


ইলিশ মাছের ত্রিশ কাঁটা-এটি গ্রামেগঞ্জের জনপ্রিয় কথিত একটি শ্লোক। ভোজন রসিকদের কাছে ইলিশ বেশ জনপ্রিয় হলেও এই কাঁটার ভয়েই অনেকে ইলিশ খেতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন না। তবে এ বছর ইলিশের দাম এতই বেড়েছে, যেকারনে এটি নি¤œআয়ের মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। তাই অনেকে রসিকতা করে বলছেন, ইলিশের নাকি যত কাঁটা তত দাম।


ইলিশের এমন দাম বাড়ার কারণ হিসেবে বড় ফেনী নদীতে ইলিশ সংকট বলছেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সৈয়দ আমিনুল ইসলাম।
ফেনীর বিভিন্ন বাজারগুলো ঘুরে দেখা গেছে বড় সাইজের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ১৩শ থেকে ১৫শ টাকায়। মাঝারি সাইজের ইলিশ কেজি ৯শ থেকে ১ হাজার টাকা। ছোট সাইজের ইলিশ কেজিপ্রতি ৬শ থেকে সাড়ে ৬শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা গত বছরের তুলনায় অনেক বেশি বলে জানালেন খুচরা বিক্রেতারা। ইলিশের দামের উর্ধ্বগতি সাধারণ ক্রেতাদের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে।
রুপম কর্মকার নামে একজন ক্রেতা জানান, বাজারে ইলিশ কিনতে এসেছিলাম। কিন্তু দাম শুনে হতাশ হয়েছি। এত দাম দিয়ে ইলিশ কিনে খাবার সাধ্য আমার নেই।


আরেক ক্রেতা জানান, ইলিশের দাম গত বছরের তুলনায় অনেক বেশি।


সোনাগাজী উপকূলীয় অঞ্চলের জেলেরা জানান, ফেনী নদীতে ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে না। সারাদিন জাল ফেলে যে কয়টি ইলিশ পাওয়া যায় তাতে খরচ ওঠাতে হিমশিম খেতে হয়।


স্থানীয় জেলে সুধাংসু জলদাস জানান, প্রতিদিন ৫/৬ জন জেলে নিয়ে ইলিশ ধরতে নদীতে যাই। যে পরিমান ইলিশ পাই তাতে তাদের খাওয়া দাওয়া ও ট্রলারের ইঞ্জিনের তেল খরচও হয়না। এতে করে অনেক জেলে ইলিশ মাছ ধরার প্রতি আগ্রহ হারিয়েছে।
জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, সর্বশেষ তথ্যমতে ১২৭ দশমিক ৩ টন ইলিশ ধরা পড়েছে। কিন্তু চলতি মৌসুমে তুলনামূলক ইলিশ খুম কম পাওয়া যাচ্ছে। এ কারণে বাজারে এর দামও বেশি।

 

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।