ফেনীতে আরও ৪১ জনের করোনা শনাক্ত


দিনের ব্যবধানে ফেনীতে আরও ৪১ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৮৯৬ জনে। এছাড়া আজ আরও ১৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলেন ২ হাজার ২৫৬ জনে। আজ বুধবার (৭ এপ্রিল) বিকালে এসব তথ্য জানায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, গতকাল মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ফেনীর ১২৪ টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪১ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার প্রায় ৩৩ শতাংশ।

নতুন শনাক্তকৃতদের মধ্যে ফেনী সদরে ২২ জন, ছাগলনাইয়ায় ৩ জন, দাগনভূঞায় ৯ জন, সোনাগাজীতে ১ জন, পরশুরামে ৩ জন, ও ফুলগাজীতে ৩ জন রোগী রয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ প্রদত্ত তথ্যমতে, পরীক্ষার জন্য মোট প্রেরিত ১৬ হাজার ৯৪৮ টি নমুনার মধ্যে প্রাপ্ত ১৬ হাজার ৫৯৫টি নমুনার ফলাফলে উক্ত সংখ্যা শনাক্ত করা হয়। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার প্রায় ১৭.৪৫ শতাংশ।

স্বাস্থ্য বিভাগ প্রদত্ত তথ্যমতে, এ পর্যন্ত ফেনীতে শনাক্ত ২ হাজার ৮৯৬ জন রোগীর মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত হয়েছে ফেনী সদরে ১ হাজার ২৭২ জন। শনাক্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে দাগনভূঞা উপজেলা। এ উপজেলায় মোট শনাক্ত করা হয়েছে ৫০৫ জন। এরপরে রয়েছে ছাগলনাইয়ায় ৩৭৮জন, সোনাগাজীতে ৩৪১ জন, পরশুরামে ১৯৩ জন ও ফুলগাজীতে ১৭০ জন। এছাড়া ফেনীর বাইরের ৩৬ জন রোগী রয়েছে।

শনাক্তকৃত মোট করোনা রোগীর ৪৩.৯২ শতাংশ রোগীই ফেনী সদরের। আক্রান্তদের মধ্যে আজ পর্যন্ত জেলায় ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ফেনী সদরে সর্বোচ্চ ১৯জন, সোনাগাজীতে ১১জন, দাগনভূঞায় ৮জন, ছাগলনাইয়ায় ৬জন, পরশুরামে ৩জন ও ফুলগাজীতে ১ জন রয়েছেন। 

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, আক্রান্তদের মধ্যে ২০জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছে। এর মধ্যে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ১৩ জন, ছাগলানইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩জন, দাগনভূঞা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১ জন ও ফেনীর মেডিনোভা হাসপাতালে জন রোগী রয়েছে। এ পর্যন্ত ৫৩ হাজার ৪৫০ রোগী টেলিমেডিসিন সেবা নিয়েছেন।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়ক ডা: আবুল খায়ের মিয়াজী জানান, হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৩০ শয্যার বিপরীতে ভর্তি আছেন ৫৬ জন রোগী, যাদের মধ্যে ৩৭জন পুরুষ ও ১৯ জন নারী। গত ২৪ ঘন্টায় ১৯ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এছাড়া ৭জন পুরুষ ও ৬ জন পজিটিভ রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তিনি আরও জানান, গতকাল হাসপাতাল হতে প্রেরিত ৫৮টি নমুনার মধ্যে ২৫টি পজিটিভ এসেছে। অর্থাৎ প্রতি দুইটি নমুনার মধ্যে একটি পজিটিভ।

গত বছরের ১৬ এপ্রিল জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলায় প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্তের কথা জানায় স্বাস্থ্য বিভাগ।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।