শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখল ফেনী ফুটবল একাডেমী


বঙ্গবন্ধু একাডেমী কাপে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রেখেছে ফেনী ফুটবল একাডেমী। আজ বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন আয়োজিত টুর্নামেন্টে ফাইনাল খেলায় দুই বিভাগে বিজয়ী হয়ে শিরোপা লাভ করেছে স্বাগতিকরা।

ভাষা শহীদ সালাম স্টেডিয়ামে বিকালে প্রধান অতিথি থেকে টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ করেন ফেনী-২ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী। এসময় জেলা প্রশাসক মো: ওয়াহিদুজজামান, পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরন্নবী, বাফুফে ডেভেলপমেন্ট কমিটির সদস্য ও সাবেক জাতীয় ফুটবল দলের খেলোয়াড় খন্দকার রকিবুল ইসলাম রকিব, ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি মামুনুর রশিদ মিলন, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ডালিম বিভিন্ন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে অনুর্ধ্ব-১২ বিভাগে ৩-০ গোলে স্পোর্টস একাডেমী ফেনীকে পরাজিত করে শিরোপা জিতে ফেনী ফুটবল একাডেমী। ৫০ মিনিটের মাঠে গড়ানো ম্যাচে প্রথমার্ধ্বে রিপনের করা গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। খেলার দ্বিতীয়ার্ধ্বে কয়েকবার চেষ্টা করেও গোলের দেখা পায়নি স্পোর্টস একাডেমী ফেনী। দ্বিতীয়ার্ধে ৬ ও ১১ মিনিটে রিপন ও আকাশের জোড়া গোলে ম্যাচ একচেটিয়া নিজেদের করে নেয় ফেনীর ক্ষুদে খেলোয়াড়রা। ১৮ মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর আবারও সুযোগ আসলেও গোল করতে ব্যর্থ হয় তারা।

শেষ সময়ে স্পোর্টস একাডেমী ফেনী আর ম্যাচে ফিরতে না পারায় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন ফেনী। দলের জয়ে ভূমিকা রাখায় এ ম্যাচে ম্যাচসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয় পাভেল।

ফাইনালের ২য় খেলায় দুপুর ৩টায় অনুর্ধ্ব-১৮ বিভাগে স্বাগতিক ফেনী ফুটবল একাডেমীর মুখোমুখি হয় ছাগলনাইয়া ফুটবল একাডেমী। ৭০ মিনিটে নির্ধারিত খেলার প্রথমার্ধ্বের ২০ ও ২৭ মিনিটে মামুন ও আবিরের করা গোলে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। দ্বিতীয়ার্ধ্বে কয়েকবার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি ছাগলনাইয়া। আর কোন গোল না হওয়ায় ফেনী ফুটবল একাডেমী টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়।

ফাইনালে ম্যান অফ দ্যা ফাইনাল খেলোয়াড় নির্বাচিত হয় ফেনীর খেলোয়াড় আরমান হোসেন আবির। স্বাগতিকদের স্টাইকার আব্দুর রাফেত রিসাদ টুর্নামেন্টে ৬ গোল করে সেরা গোলদাতা পুরুস্কার লাভ করেন।
টুর্ণামেন্টে অনুর্ধ্ব-১২ ইফরান ইসলাম আবীর ও অনুর্ধ্ব-১৮ মো. রায়হান। সর্বোচ্চ গোলদাতা-অনুর্ধ্ব-১২ মো. রিপন ও অনুর্ধ্ব-১৮ গাজী মো. আবদুর রাফেত। ফাইনাল খেলা শেষে বিজয়ী ও বিজিত দলের খেলোয়াড়ের মাঝে ট্রফি ও প্রাইজমানি তুলে দেন অতিথিরা।

এর আগে গত ২৩ ডিসেম্বর জেলার ৮শ খেলোয়াড়ের অংশগ্রহণে মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ফেনীতে এ যাবতকালে ফুটবলের এ বৃহৎ কর্মযজ্ঞ শুরু হয়েছিল। এতে দুই বিভাগে জেলার ৩২ টি দল অংশগ্রহণ করেছে।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।