গরু ব্যবসায়ীকে হত্যা : কালামকে খুঁজছে পুলিশ


ফেনী শহরের সুলতানপুরে শাহজালাল (৩০) নামে একজন গরু ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের স্বজনরা বলছেন, চাঁদা না পেয়ে ফেনী পৌরসভার ছয় নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল কালাম গুলি করে শাহজালালকে হত্যা করেছে। ঘটনার পর থেকে কাউন্সিলর কালাম এখনও পলাতক রয়েছে।

তবে ফেনীর পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরুন্নবী জানিয়েছেন, কালামকে গ্রেফতার করতে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সাগর নামে কালামের এক সহযোগিকে আটক করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার (১৬ জুলাই) সকাল ৭টায় ওই এলাকার আমিনবাজার সড়কের পাশের একটি পুকুর হতে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় শাহজালালের সঙ্গে আসা চাচাতো ভাই ইউপি মেম্বার আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে কালামকে প্রধান আসামী করে আরও তিনজনের নামোল্লেখে থানায় মামলা করেছেন। 

খবর পেয়ে আজ সকালে পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাঈনুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম, ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নিহতের স্বজনরা বলছেন, গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে দিকে কিশোরগঞ্জ থেকে ১৫টি গরু বোঝাই একটি ট্রাক নিয়ে শাহ জালাল নামের ওই গরু ব্যবসায়ী ফেনী গার্লস ক্যাডেট কলেজ রোডের সাহেববাড়ি এলাকায় আত্মীয় আল আমিনের বাড়িতে আসেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী নিহতের চাচাতো ভাই আল আমিন অভিযোগ করে বলেন, গরু নিয়ে ফেনীর সুলতানপুর এলাকায় এলে স্থানীয় কাউন্সিলর আবুল কালাম ও তার ২ সহযোগি মিলে তাদের কাছে চাঁদা দাবি করে। এতে রাজি না হওয়ায় বাক বিকন্ডার এক পর্যায়ে কালাম শাহজালালের বুকে গুলি করে।

তিনি আরও জানান, শোরগোল শুনে বাইরে এসে দেখি কাউন্সিলর কালাম শাহজালালের কপালে পিস্তল ঠেকিয়ে রেখেছে। আমি তাকে ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করলে তারা আমাকেও মারতে থাকে। কালাম আমাকে গালিগালাজ করতে করতে তার হাতে থাকা পিস্তল থেকে একটি ফাঁকা গুলি করে। তখন শাহজালালের সঙ্গে থাকা অন্য ব্যবসায়ীরা প্রাণভয়ে দৌড়ে পালায়। পরক্ষণেই কালাম শাহজালালের বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করলে সে মাটিতে লুটে পড়ে। এরপর আমাকেও গুলি করতে চেয়েছিল কালাম। তখন আমার স্ত্রী কালাম ও সাগরের হাতপায়ে ধরে আমাকে ছাড়িয়ে বাসার ভেতর নিয়ে যায়৷ 

ঘটনার আরেক প্রত্যক্ষদর্শী আল আমিনের স্ত্রী সুমি আক্তার জানান, আমার স্বামী বারবার তাদের অনুরোধ করছিল তাকে ছেড়ে দিতে। কালাম আমার চোখের সামনে আমার চাচাতো দেবরকে গুলি করেছে।  এরপর কালাম ও সাগর মিলে শাহজালালকে মোটরসাইকেল তুলে নিয়ে চলে যায়। 

গরু ব্যবসায়ী শাহজালালের বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার সাগুলি গ্রামে। তিনি গরুগুলো হাটে বিক্রির জন্য ফেনীতে এনেছিলেন।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।