জনদূর্ভোগ নিয়ে ফেনী পৌরসভাকে দোষারোপ


ফেনী শহরে যানজট, ফুটপাত দখল, অবৈধ পার্কিং, অপরিকল্পিত ময়লার ডাস্টবিন, রিকশা ও গাড়ি চলাচলের অনিয়মের কথা বলে ফেনী পৌরসভাকে দোষারোপ করলেন জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির একাধিক সদস্য।

আজ রবিবার (৮ নভেম্বর) সকাল ১০ ঘটিকায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা শুরু হয়, এতে জনজীবনের বিষয়গুলো উঠে আসে।

জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুজজামান বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশে ফেনী পৌর এলাকার মতো এমন স্বাধীনতা কোথাও নেই, এখানে রিকশাকে বামপাশ দিয়ে চলার আইন করলে ডানপাশ দিয়ে চলে, ফুটপাত একদিন উচ্ছেদ করলে আরেকদিন বসে। এইভাবে সব স্বাধীনভাবে হয় কিন্তু ব্যবস্থা নেওয়া হয় না।
জেলা প্রশাসক বলেন, শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে ফলের দোকান, ফুটপাথ দখল করে ব্যবসা করছে। মহিপালে কয়েকটা শহরের গাড়ি দাঁড়ায়, একই পথ হওয়ায় আমাদের অফিসে আসতেও অনেক সময় বিলম্ব হয়ে যায়।

এসময় তিনি যানজট নিরসনে গাড়ির অবৈধ পার্কিং এর বিরুদ্ধে পৌরসভাকে উদ্যোগ নেবার আহবান জানান। এছাড়াও মহিপালের যানজট নিরসনে ট্রাফিক ব্যবস্থা উন্নত করার জন্য ট্রাফিক বিভাগকেও আহবান জানান। তিনি পরিবহন মালিক সমিতির নেতাদের যত্রতত্র পার্কিং ব্যবস্থা রোধে পৌরসভাকে সহযোগিতা করার অনুরোধ করেন।

সভায় সদস্যদের অভিযোগের ভিত্তিতে জেলা প্রশাসক শহরে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ডাস্টবিনকে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় নিয়ে যাবার জন্য পৌরসভাকে অনুরোধ জানান।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মাঈনুল ইসলাম বলেন, ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ে আমরা ব্যর্থ৷ পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের সাথে আমরা সভা করে একটা সিদ্ধান্তে আসি তবে বাস্তবায়ন করতে গেলে সেগুলো আর করতে পারি না। তারা আমাদের সহযোগিতা করছে না, আইন মানছে না। ফুটপাত অবৈধভাবে দখল হয়, পুলিশ অভিযান করলে কয়েকদিন দখলদাররা থাকে না, তারপর আবার বসে।

এসব বিষয় নিয়ে পৌরসভাকে নজর দেবার আহবান জানিয়ে মাঈনুল ইসলাম বলেন, খুব শীঘ্রই ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় নতুনত্ব আসবে। তখন আর এমন অনিয়মকারী কেউ ছাড় পাবেনা।

ফেনী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান বিকম বলেন, শহরের যানযট নিরসনে সবাইকে কাজ করতে হবে। সবাইকে সবার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসতে হবে। পৌরসভাকে নিজ কাজে আরও সক্রিয় হতে হবে।

ফেনী সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আর এস এম মাসুদ রানা বলেন, আমাদের সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সামনে সিএনজি অটোরিকশা পার্কিং করা হয়। আমাদের গেইটের বিপরীতে ময়লা আবর্জনার স্তুপ রয়েছে। এগুলো সেখান থেকে অপসারণ করার জন্য পৌরসভাকে অনুরোধ জানান তিনি।

বিভিন্ন অভিযোগের প্রেক্ষিতে ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলাউদ্দিন বলেন, শহরের ময়লা আবর্জনার ডাস্টবিনগুলো গুরুত্বপূর্ণ জায়গা থেকে সরিয়ে নেবার চেষ্টা করা হচ্ছে।
তিনি জানান, পৌর এলাকা পরিচ্ছন্ন রাখতে পরিচ্ছন্নতা কর্মীর সংখ্যা অপ্রতুল। মানুষ এখন এই কাজ অনেকে করতে চাচ্ছে না। তাই ময়লা অপসারণ করতে বিলম্ব হয়।

এছাড়াও যানযট নিরসনে ট্রাফিকের সাথে পৌরসভার কর্মীরাও কাজ করছে বলে জানান তিনি। এসময় তিনি সকল সমস্যা খুব শীঘ্রই সমাধান হবে বলে আশ্বাস দেন পৌর মেয়র।

এছাড়াও সভায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ, সম্প্রতি মোবাইল কোর্টের জরিমানাসহ জেলার বিভিন্ন আইন শৃঙ্খলা বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

সভায় পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরুন্নবী, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ গোলাম জাকারিয়া, ফেনী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরীন সুলতান, ছাগলনাইয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া তাহের, ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম, জেলা শিক্ষা অফিসার কাজী ছলিম উল্লাহ, ফেনী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল, র‌্যাব, আনসার, বিজিবির প্রতিনিধিরা, জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সদস্যরাসহ জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।